উত্তর আমেরিকা, ইউরোপসহ বিশ্বের বিভিন্ন স্থানের মানুষ একটি বিরল পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ দেখতে পেয়েছে গতকাল মঙ্গলবার। দীর্ঘ ৩৭২ বছর পর প্রথমবার দক্ষিণায়নে পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণের ঘটনা এটি। এর আগে ১৬৩৮ সালে এই চন্দ্রগ্রহণ হয়েছিল।
পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণের সময় সূর্য, পৃথিবী ও চাঁদ প্রায় একই রেখায় চলে আসে। এ সময় সূর্য থেকে চাঁদকে পুরোপুরি আড়াল করে ফেলে পৃথিবী। দক্ষিণায়ন হলো শীতকালে পৃথিবীর অক্ষরেখা থেকে সূর্যের সর্বোচ্চ দূরত্বে থাকার সময়। সাধারণত বছরের সবচেয়ে ছোট দিন হয় এটি। চন্দ্রগ্রহণের সময় চাঁদ তুলনামূলকভাবে অনুজ্জ্বল হয়ে যায়।
যুক্তরাজ্যে স্থানীয় সময় গতকাল ভোর পাঁচটা ২৮ মিনিটে এই চন্দ্রগ্রহণ শুরু হয়। সকাল সাতটা ৪০ মিনিটে পুরোপুরি পৃথিবীর আড়ালে ঢাকা পড়ে চাঁদ।
আমেরিকার পশ্চিম উপকূলে চন্দ্রগ্রহণ শুরু হয় স্থানীয় সময় সোমবার রাতে। উত্তর ও মধ্য আমেরিকার মানুষ পুরো চন্দ্রগ্রহণটি দেখতে পেয়েছেন। পশ্চিম এশিয়ায় চন্দ্রগ্রহণের শেষ অংশটুকু দেখা গেছে। পূর্ণগ্রহণের সময় এক ঘণ্টার কিছু বেশিক্ষণ পৃথিবীর ছায়ায় ঢাকা পড়েছিল চাঁদ। এই গ্রহণের সময় দিগন্তের কাছে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য সূর্য ও গ্রাস হওয়া চাঁদকে একসঙ্গে দেখা গেছে। বিরল এই ঘটনাকে সেলেনেহেলিয়ন বলে। ওই সময় আকাশে চাঁদ ও সূর্য পরস্পরের বিপরীত প্রান্তে অবস্থান করে। সাধারণত সূর্যাস্ত বা সূর্যোদয়ের সময় এ ঘটনা ঘটে।

Source